30 দিনের ওজন কমানোর গোপন কৌশল ধাপে ধাপে জানুন

এই ফর্মুলা আপনাকে আপনার ওজন কমানোর লক্ষ্য অর্জনে আপনার সেরা পা রাখতে সাহায্য করবে।আপনি সম্ভবত অনেকবার ওজন কমাতে চেয়েছেন, কিন্তু আপনি কীভাবে আপনার ব্যস্ত সময়সূচীতে ব্যায়াম ফিট করবেন তা বুঝতে পারেননি। যদি এটি আপনার মত শোনায়, তাহলে এই প্রোগ্রামটি আপনার প্রয়োজন

আপনি যে ওজন কমাতে চান তা কমাতে ব্যায়াম করা আবশ্যক। এবং আপনি যতটা ভাবছেন ততটা কঠিন নয়। আপনার প্রতিদিনের রুটিনে এই প্রতি-দিনের ওজন কমানোর ওয়ার্কআউট প্ল্যান যোগ করুন এবং দেখুন চর্বি পোড়ানো এবং পেশী তৈরি করা কত দ্রুত এবং সহজ—কোন জিমের প্রয়োজন নেই! সেরা ফলাফলের জন্য, 30 দিনের জন্য আমাদের ওজন কমানোর ওয়ার্কআউট পরিকল্পনা অনুসরণ করুন। প্রতিদিন করা, এই 30-মিনিটের ব্যায়াম আপনাকে শক্তিশালী বোধ করতে, চিকন দেখাতে এবং মাত্র চার সপ্তাহে আপনার স্ট্যামিনা বাড়াতে সাহায্য করবে।

প্রথম ধাপঃ

দীর্ঘ সময় ধরে বসে বসে কাজ করা দৈহিক পরিশ্রম থেকে বিরত থাকার কারণে পেটের মেদ জমতে থাকে এর ফলে নানান সমস্যা সৃষ্টি দেখা দেয়  হাট সমস্যা ব্লাড সুগার হাই পারটেনশন নানান সমস্যার মূল কারণ তাই সকালে একটু হাঁটার অভ্যাস করুন অফিসের কাজ বসে বসে করতে হয় সেখানে শরীরের সচল বৃদ্ধি কোন সুযোগ নেই তাই একটুও ঘুম থেকে আগে ওঠার চেষ্টা করুন আর অফিসে হেঁটে হেঁটে যাওয়ার অভ্যাস করুন এবং যদি অফিসের লিফট থেকে থাকে তাহলে আপনি সিঁড়ি দিয়ে উঠার চেষ্টা করুন

দ্বিতীয় ধাপঃ

 ওজন কমানোর খাবারের  গ্রিন টি  হচ্ছে একটি ভালো ফর্মুলা একটি গবেষণায় দেখা গেছে  1 থেকে 3 কাপ গ্রিন টি পান করলে  প্রতি দুই সপ্তাহে অতিরিক্ত ৪০০ থেকে ৮০০ক্যালোরি পর্যন্ত ক্রয় করা সম্ভব  গ্রীন টি তে রয়েছে বেশি পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এটি আমাদের শরীরের ওজন কমাতে সাহায্য করে তাই প্রতিদিন গ্রিন-টি 1 থেকে 3 কাপ পান করুন

তৃতীয় ধাপঃ

লেবুর রস খেতে পারেন তবে ঠান্ডা পানিতে নয় হালকা একটু গরম করে নিয়ে অর্ধেকটা লেবু চিপে নিন এতে পরিমাণমতো একটু লবণ মিশ্রিত করে নিন তবে চিনি দেওয়া যাবেনা এবার প্রতিদিন সকালে পান করুন এটি আপনার শরীরের বাড়তি মেদ চর্বি কমাতে ভালো সাহায্য করবে

চতুর্থ ধাপঃ

যে সমস্ত খাবার থেকে বিরত থাকবেন  ভাজাপোড়া  অতিরিক্ত তেলযুক্ত খাবার  গরুর মাংস খাসির মাংস মুরগির মাংস অ্যালকোহল যুক্ত পানি  সেদ্ধ খাবার কখনো খাবেন না  যেকোনো খাবার খাওয়ার সময় আস্তে আস্তে খাবেন এতে করে বেঁধে হজম বৃদ্ধি পাবে না

পঞ্চম ধাপঃ

প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন প্রচুর পানি পান করার ফলে আপনার শরীরের মেটাবলিজম বাড়াতে বৃদ্ধি পায় এবং ব্লাড ক্ষতিকর উপাদান এতে প্রসাবের সময় বের হয়ে আসে চর্বি জাতী উপাদানগুলি ঝরে পড়ে যায়

ষষ্ট ধাপঃ

সঠিক সময়ে ঘুমানোর চেষ্টা করুন এতে করে মানসিক ও শারীরিক স্মৃতিশক্তি বেড়ে যায় পরিমাণমতো ঘুম না হলে শরীরে নানা রকম সমস্যার সৃষ্টি হয় ফলে পাচন ক্ষমতা কমে যায় এবং শরীরের মেদ জমতে শুরু করে তাই সঠিক সময়ে ঘুমানোর অভ্যাস করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.